কঠিন একটি শপথ নিয়েছেন মেসি

ভিনগ্রহের ফুটবলার খ্যাত লিওনেল মেসি রাশিয়া বিশ্বকাপে এখনো পর্যন্ত কোন গোলের দেখা পান নি। দুটি ম্যাচ খেলে একটিতে ড্র ও অপরটিতে বড় ব্যবধানে হেরেছে তার দল। এমন কঠিন পরিস্থিতিতেই এই ফুটবল জাদুকরের ৩১তম জন্মদিন পালিত হলো রবিবার। কিন্তু জন্মদিনে স্ত্রী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জো ছিলেন না তার পাশে। তাই সেটা নিয়েও রহস্য খুঁজছিলেন আরজেন্টিনিও সংবাদমাধ্যমগুলো, তাহলে কি দুজনের সম্পর্কে ভাঙন ধরলো? এমনটি ধারণা করছিলেন তাঁরা।

কিন্তু সাংবাদিকদের হতাশ করে দিয়ে জন্মদিনে অনেক দূর থেকে স্বামীকে হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসার বার্তা জানালেন স্ত্রী রোকুজ্জো। ইনস্টাগ্রামে তাদের পরিবারের অসংখ্য ছবি পোস্ট করে মেসি -পত্নী লেখেন,’শুভ জন্মদিন। আমরা সবাই তোমাকে ভালোবাসি। আমাকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী স্ত্রী হিসেবে রাখার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। খুব ভালো থাকো।’ কিন্তু এত দূরে বসে নিজের আবেগটা ধরে রাখতে পারেননি তিনি।

তাই মঙ্গলবার নাইজেরিয়ার বিপক্ষে মেসিদের মরণ-বাঁচন ম্যাচের  আগেই ছেলেদের নিয়ে রাশিয়ার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমালেন রোকুজ্জো । উদ্দেশ্য গ্যালারিতে থেকে স্বামী লিওনেল মেসিকে সাহস যোগানো।

জন্মদিনে অধিনায়ক মেসিকে আরো শুভেচ্ছা জানান একদা বার্সেলোনায় তার ব্রাজিলীয় সতীর্থ নেমার দ্য স্যান্টোস সিলভা জুনিয়র, কার্লেস পুয়োল, লুইস সুয়ারেস। আরো তাৎপর্যপূর্ণ হচ্ছে রবিবার জন্মদিনে মেসিকে জড়িয়ে ধরে শুভেচ্ছা জানান কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। কোচকে নিয়েই তো এখন যত কান্ড ব্রনিতসিতে ! আর্জেন্টিনা শিবিরে ফুটবলারদের যাবতীয় ক্ষোভ কোচের বিরুদ্ধেই ।

কিন্তু রোববার সাংবাদিকদের সামনে সেই বিতর্ক সযত্নে এড়িয়ে গেলেন অধিনায়ক মেসি। বরং তার মুখে শোনা গেছে অন্য এক কঠিন শপথের কথা! মেসি বলেছেন, ‘বিশ্বকাপ না জেতা পর্যন্ত অবসর নেব না! বরাবরই একটা ছবি দেখেছি যে, ‘ বিশ্বকাপের ট্রফিটা হাতে নিয়ে তুলছি। শুধু সেই আকাঙ্ক্ষিত মুহূর্তের কথা ভেবে আমার চুল এখনো সোজা হয়ে যায়। লক্ষ্যাধিক আর্জেন্টিনীয় সমর্থককে সুখী করতে চাই। তাই সেই স্বপ্নপূরণ না হওয়া পর্যন্ত অবসর নিচ্ছি না।’

এবার যদি বিশ্বকাপ ছাড়াই দেশে ফিরতে হয় আর্জেন্টিনাকে সেক্ষেত্রে মেসিকে তাকিয়ে থাকতে হবে কাতারে ২০২২-এর বিশ্বকাপের দিকে। তখন তার বয়স হবে ৩৫ বছর! কিন্তু বয়সের দিকে তাকাচ্ছেন না এই অধিনায়ক। বরং তার মুখে স্বপ্নপূরণের কথা। তার কথায়,  ‘ আমি প্রায় সমস্ত বড় টুর্নামেন্ট জিতেছি। উন্মুখ হয়ে আছি, বিশ্বকাপ জিতে শেষটাও মধুর করতে।’

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: